ট্র্যাকে ছুটল বিশ্বের প্রথম হাইড্রোজেন ট্রেন, রেলের দুনিয়ায় নতুন বিপ্লব

0
66

“হাইড্রোজেন ট্রেন”, হাইড্রোজেন এবং অক্সিজেনের সাথে মিলে তৈরি করবে বিদ্যুৎ। চিন্তা করে দেখেছেন কি অভাবনীয় বিপ্লব হতে যাচ্ছে??? …..অাক্ষরিক অর্থে বলা যায় ভবিষ্যতে যন্ত্র চলবে পানি দিয়ে।………..পেট্রোল, ডিজেলের বাজার শেষ এবং পেট্রোল, ডিজেল উৎপাদন নির্ভর দেশ পড়তে যাচ্ছে কঠিন বিপদে।…হাতে হারিকেন ধরার সময় এসে গেছে।
……………………………………
রেলের দুনিয়ায় নতুন বিপ্লব…………………………
বার্লিন: এসে গেল আরও একন নতুন প্রযুক্তির ট্রেন। জার্মানির রেল ট্র্যাকে চলল দুটি নীল রঙের ট্রেন। তবে সেগুলি সাধারণ নয়। এগুলি বিশ্বের প্রথম হাইড্রোন চালিত ট্রেন।

ফরাসি টিজিভি ট্রেন নির্মাতা আলস্টোম এই দুটি ট্রেন তৈরি করেছে। কুক্সহাফেন, ব্রেমারহাফেন, ব্রেমারফোয়ারডে ও বুক্সটেহুডে শহরের মধ্যে ১০০ কিলোমিটারের রেলপথে এটি চলে৷ এই পথে সাধারণত ডিজেলচালিত ট্রেন চলাচল করে৷ আগামিদিনে এই ধরনের ট্রেন আরও তৈরি করা হবে বলেও জানিয়েছে জার্মানি।

২০২১ সালের মধ্যে লোয়ার সাক্সনি রাজ্যকে জিরো কার্বন নিঃসরণের ১৪টি ট্রেন দেওয়ার কথা রয়েছে বলে জানায় অ্যালস্টোম৷ তাদের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, জার্মানির অন্যান্য রাজ্যও এই ট্রেনের প্রতি আগ্রহ দেখাচ্ছে৷
হাইড্রোজেন ট্রেনের জ্বালানির জন্য ‘ফুয়েল সেল’ ব্যবহার করা হয়, যা হাইড্রোজেন ও অক্সিজেনের সমন্বয়ে বিদ্যুৎ উৎপাদন করে৷ এই প্রক্রিয়ায় শুধু জলীয়বাষ্প ও পানি বের হয়৷ ট্রেনে রাখা লিথিয়াম আয়নের ব্যাটারিতে অতিরিক্ত শক্তি সঞ্চিত থাকে৷ কোরাডিয়া আইলিনট ট্রেন এক ট্যাংক হাইড্রোজেন দিয়ে এক হাজার কিলোমিটার পথ চলতে পারে, যা ডিজেলচালিত ট্রেনের মতোই৷

বিদ্যুৎহীন রেললাইনে চলাচলকারী ডিজেলচালিত ট্রেনের বদলে পরিবেশবান্ধব ট্রেন আনতে এই প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করছে আলস্টোম৷ পরিবেশ দূষণ থেকে বাঁচার উপায় খুঁজতে থাকা অনেক শহরের জন্যই এই নতুন ট্রেন আকর্ষণীয় হয়ে উঠতে পারে৷

আলস্টোমের এই প্রকল্পের ব্যবস্থাপক স্টেফান শোয়াঙ্ক বলেন, ‘‘হাইড্রোজেন ট্রেন ডিজেল ট্রেনের চেয়ে ব্যয়বহুল হতে পারে, কিন্তু এটা চালানোর খরচ কম৷”

ব্রিটেন, নেদারল্যান্ডস, ডেনমার্ক, নরওয়ে, ইটালি ও ক্যানাডাসহ আরো কয়েকটি দেশ হাইড্রোজেনচালিত ট্রেনের প্রতি আগ্রহ দেখিয়েছে বলে জানিয়েছে আলস্টোম৷ সংগ্রহীত

বিঃদ্রঃ- লেখাটি ভাল লাগলে শেয়ার করে অন্যকে জানার সুযোগ করে দিন। আপডেট সব খবরা- খবর ও অসাধারণ সব টিপস পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক এবং গ্রুপে জয়েন করে একটিভ থাকুন।

আপনার মন্তব্য লিখুন…

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here